Personal data policy

We use cookies to improve the functionality of our sites, to be able to perfect content and desire ads to you and for us to be able to ensure that the services work nicely : About our cookies and personal information

সর্বশেষ সংবাদ না ফেরার দেশে বরেণ্য অভিনেতা মাহমুদ সাজ্জাদ                 নাট্যদিশারি আফসার আহমদ এর স্মরণসভা                 মনীষী আবদুল করিম সাহিত্যবিশারদ সার্ধশতজন্মবর্ষ স্মারকগ্রন্থ'র পাঠ উন্মোচন                  বোয়ালখালীতে বিনয়বাঁশী শিল্পগোষ্ঠী'র নেতৃত্বে পশ্চিম গোমদন্ডী মাতৃ সংঘ পূজা উদযাপন পরিষদের পূজা মন্ডপ পরিদর্শন                 মহানবমীতে বিনয়বাঁশী শিল্পীগোষ্ঠীর চট্টগ্রাম মহানগরের বিভিন্ন পূজা মন্ডপ পরিদর্শন                  মহাঅষ্টমীতে বিনয়বাঁশী শিল্পীগোষ্ঠীর চট্টগ্রাম মহানগরের বিভিন্ন পূজা মন্ডপ পরিদর্শন                  হারিকেন গ্রাম বাংলার ঐতিহ্য                 শেষ শ্রদ্ধা ও ভালোবাসায় সিক্ত হয়ে বনানী কবরস্থানে সমাহিত হলেন অভিনেতা ইনামুল হক                 একুশে পদকপ্রাপ্ত দেশবরেণ্য অভিনেতা ও সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব ড. ইনামুল হক মারা গেছেন                 ভিউ’র মাইলফলক অতিক্রম করলো ‘মনে করি আসাম যাবো’                 হারিয়ে যাচ্ছে ফরিদগঞ্জের মৃৎশিল্প                 বিশ্ব ডিম দিবস আজ                 বলিউড বাদশা শাহরুখ খান বড় রকমের বিপাকে পড়েছেন                  বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমিতে গঙ্গা-যমুনা সাংস্কৃতিক উৎসবের ৬ষ্ঠ দিনের অনুষ্ঠানমালা                 লোক শিল্পী বিনয়বাঁশী জলদাস স্মরণে জীবনীগ্রন্থ হস্তান্তর                  ​গঙ্গা-যমুনা সাংস্কৃতিক উৎসবে চাকমা জাতিসত্তার নাট্যদল "হিল রিবেং থিয়েটার"                 ১ অক্টোবর থেকে বিজ্ঞাপনসহ বিদেশী টিভি চ্যানেলের সম্প্রচার বন্ধ                  মাটি ও মানুষের শিল্পী একুশে পদকপ্রাপ্ত উপমহাদেশের প্রখ্যাত ঢোলবাদক বিনয়বাঁশী জলদাসের ১১০তম জন্মবার্ষিকী পালিত                 হাসি আমাদের দেহ সুস্থ রাখার মহা ঔষধ                 ৮ম বিএমজেএ ‘মিউজিক অ্যাওয়ার্ড-২০২০’ ঘোষণাঃ আজীবন সম্মাননা পাচ্ছেন রুনা লায়লা                 কপিলমুনিতে খাদ্যের সন্ধানে দলছুট হনুমান                 লোকশিল্পী বিনয়বাঁশী জলদাসের ১১০তম শুভ জন্মদিবস ১ অক্টোবর                 বোয়ালখালীতে নবনির্বাচিত পৌর মেয়র জহুরুল ইসলাম জহুর এর সাথে বিনয়বাঁশী শিল্পীগোষ্ঠী নেতৃবৃন্দের সৌজন্য সাক্ষাৎ ও মতবিনিময়                 ডাক্তার পঙ্কজ বিশ্বাসকে লোক সাংস্কৃতিক প্রতিষ্ঠান বিনয়বাঁশী শিল্পীগোষ্ঠী'র সদস্য পদ প্রদান                 বিশিষ্ট সাংবাদিক ও কলামিস্ট কামরুল হাসান বাদলের সাথে বিনয়বাঁশী শিল্পীগোষ্ঠী নেতৃবৃন্দের সৌজন্য সাক্ষাৎ                 চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসকের প্রশাসনিক কর্মকর্তার সাথে বিনয়বাঁশী শিল্পীগোষ্ঠী নেতৃবৃন্দের সৌজন্য সাক্ষাৎ                 সাবেক প্রশাসক খোরশেদ আলম সুজন এর সাথে বিনয়বাঁশী শিল্পীগোষ্ঠী নেতৃবৃন্দের সৌজন্য সাক্ষাৎ                  দেবীগঞ্জ পৌরসভার নবনিবর্বাচিত মেয়রকে বাংলাদেশ গ্রাম থিয়েটারের শুভেচ্ছা                 আবার বিয়ে করলেন কণ্ঠশিল্পী ইভা রহমান                 ৩৩ বছরের স্টেফানি টেলর সম্পর্কহীন সন্তান জন্মদিলেন                  সাউথ ইন্ডিয়ান ইন্টারন্যাশনাল মুভি অ্যাওয়ার্ডঃসেরা অভিনেতা মহেশ বাবু, অভিনেত্রী রাশমিকা                 সাউন্ডবাংলা-পল্টনড্ডা সাহিত্যসংগঠকদের সূতিকাগার                 বিনয়বাঁশী শিল্পীগোষ্ঠী'র বৃক্ষরোপণ ও বৃক্ষ প্রদান অনুষ্ঠান                 মাসুদ মিয়ার তৈরী ওষুধ খেয়ে স্থায়ীভাবে নিয়ন্ত্রণে চলে আসছে ডায়াবেটিস                 পিঁপড়া সম্পর্কে অবাক করা ৮ টি তথ্য                 মঞ্চের খোঁজে নতুন করে স্বপ্ন দেখছেন পাইকগাছার যাত্রাশিল্পীরা                 ঈশানের বাবা চাইলে তবেই তাকে দেখতে পাওয়া যাবে-নুসরত                  কেউ জানেন না এ গাছের নাম কি? সবাই বলে অচিন গাছ                 একুশে টেলিভিশনে শুরু হচ্ছে ধারাবাহিক নাটক ‘নাটাই ঘুড়ি                 পূর্ণদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র ‘চিরঞ্জীব মুজিব’ ছাড়পত্র পেয়েছে                  দাঁত দিয়ে ফিতা কেটে ব্যাপক ট্রোল হলেন এক মন্ত্রী                 চাকরিজীবি থেকে সফল ব্যবসায়ী জেবিন                 শিবগঞ্জে হারিয়ে যাচ্ছে বাঁশ শিল্প প্রাচীন শিল্পগুলো বিলুপ্তির দ্বারপ্রান্তে!                 চিত্রনায়িকা পরীমণিকে মাদক মামলায় জামিন দিয়েছেন আদালত                  তীর ধনুক চালনায় পারর্দশী সাঁওতাল সম্প্রদায়                  পুলিশ নাট্যদলের পরিবেশনায় ‘অভিশপ্ত আগস্ট’ নামে একটি নাটক মঞ্চায়ন                 শিশুদের বুকের দুধ পান করতে মায়েদের সহায়তায় বাংলাদেশ বিশ্বে প্রথম স্থান অর্জন করেছে                 কণ্ঠশিল্পী নাজমুন মুনিরা ন্যান্সি তৃতীয় বারের মতো বিয়ের পিঁড়িতে বসতে যাচ্ছেন                 মায়ের পুষ্টিই ভবিষ্যৎ শিশুর পুষ্টি                 অপেক্ষার অবসান? নাকি আক্ষেপ?                

Tuesday, October 26, 2021
Login
Username
Password
  সদস্য না হলে... Registration করুন


বাহারি


হারিকেন গ্রাম বাংলার ঐতিহ্য
মাহিদুল ইসলাম :
সময় : 2021-10-13 15:47:36

নাগরপুর (টাঙ্গাইল) প্রতিনিধি ঃ গ্রাম বাংলার ঐতিহ্য ও আদরে লালিত হারিকেন এখন বিলুপ্তির পথে। গ্রাম বাংলার ছাত্র-ছাত্রীসহ সকল পরিবারের মাঝেই হারিকেন বাতি আলোকিত করতো। সন্ধ্যার পর হতেই রাতের অন্ধকার দূর করতে একটা সময় দেশের প্রতিটি গ্রামের মানুষের অন্যতম ভরসা ছিল হারিকেন, দোয়াত (কুপি) বাতি। ৯০ দশকের পূর্বে ও কিছুকাল পর দেশে বিদেশি চাকরিসহ নানা পেশায় উচ্চপর্যায়ে কর্মরত থাকাদের মধ্যে অনেকেই পড়ালেখা করেছেন এই হারিকেনের মৃদু আলোয়। গৃহস্থালি এবং ব্যবসার কাজেও হারিকেনের ছিল ব্যাপক চাহিদা। বিয়ে জন্মদিন বা পারিবারিক কোন অনুষ্ঠানে লোকের সমাগম হলে ব্যবহার হতো হ্যাজাক, পাশাপাশি জমা রাখা হতো এই হারিকেন। যুগের পরিবর্তনের পাশাপাশি হারিকেনের স্থান দখল করেছে নানা ধরনের বৈদ্যুতিক, রিচার্জার বাতি। বৈদ্যুতিক ও চায়না বাতির কারণে গ্রাম ও শহরে হারিকেনের ব্যবহার বন্ধ হয়েছে। সেই আলোর প্রদীপ হারিকেন এখন গ্রাম থেকেও প্রায় বিলুপ্ত হচ্ছে। হারিকেন জ্বালিয়েই বাড়ির উঠানে বা বারান্দায় পড়াশোনা করত শিক্ষার্থীরা। রাতের বেলায় পথ চলার জন্য ব্যবহার করা হত হারিকেন। হারিকেনের জ্বালানি হিসেবে কেরোসিন তৈল (ডিজেল) আনার জন্য প্রায় বাড়িতেই থাকত কাচের বিশেষ ধরনের বোতল। সেই বোতলে রশি লাগিয়ে ঝুলিয়ে রাখা হতো। গ্রাম গঞ্জের হাটের দিনে সেই রশিতে ঝোলানো বোতল হাতে যেতে হতো হাটে। এ দৃশ্য বেশি দিন আগের নয়। পল্লী বিদ্যুতায়নের যুগে এখন আর এমন দৃশ্য চোখে পড়ে না। বাংলার গ্রামীণ ঐতিহ্য দোয়াত, কুপি ও হারিকেন এখন শুধুই স্মৃতি হিসেবে অনেকের বাড়িতেই। তবে অনাদর আর অবহেলার পাত্র হিসেবে। বাংলাদেশ ডাক বিভাগের লোগোটি এখনএ হাতে হারিকেন ও বস্তাবন্দি চিঠিসহ লাঠি নিয়ে ছুটে চলে তার কর্ম পালনে। নিত্য নতুন প্রযুক্তি মানুষকে উন্নত করছে তাই হারিকেন ছেড়ে মানুষ এখন সৌর বিদ্যুৎ সহ বিদ্যুতের দিকে ঝুঁকছে। তাপবিদ্যুৎ, জলবিদ্যুত, সৌরবিদ্যুৎসহ জ্বালানি খাতে ব্যাপক উন্নয়নে ঐতিহ্যবাহী হারিকেন বিলুপ্তির পথে। বিজ্ঞানীদের আবিষ্কার , যেমন চার্জলাইট, সৌরবিদ্যুৎসহ বেশ কিছু আলোর জোগান থাকায় এখন আর কেউ-ই ঝুঁকছেন না হারিকেন, দোয়াত, কুপি বাতি বা হ্যাজাকের দিকে। নতুন প্রজন্ম হয়তো জানবেও না হারিকেন কী ও হারিকেনের ইতিহাস। ঘিওরকোল গ্রামের মোছা. রহিতন বেগম (৭৫), লাকী তালুকদার (৪০) জানান, আমাদের বাড়িতে দেশ স্বাধীনের পূর্ব হতেই কেরোসিনের বাতি এবং পরবর্তীতে হারিকেন ব্যবহার করা হতো। যাহা এখনও বিদ্যমান রয়েছে, দিনদিন প্রযুক্তির উন্নতি ও জীবনযাত্রার মানোন্নয়নের জন্য এখন আর উক্ত সরঞ্জাম গুলোর ব্যবহার না করলেও স্মৃতি হিসেবে রেখে দিয়েছি। এই ব্যবহারিত হারিকেনটি ১৯৯৪ সনে কেনা ছিল। কালের বিবর্তনের সাথে সাথে সবকিছুই পরিবর্তন ঘটেছে। নাগরপুর মহিলা অনার্স কলেজের সমাজ বিজ্ঞান এর প্রভাষক মো. মামুন মিয়া বলেন, হারিকেন আমাদের পরম বন্ধু ছিল, হারিকেন জ্বালিয়ে আমরা লেখাপড়া করেছি। এখনকার ছাত্রছাত্রীদের কাছে হারিকেন এর কথা কাল্পনিক মনে হবে। ঘরে বিদুৎ, সোলার থাকায় আজ হারিকেন এর কোন প্রয়োজন নেই, তবে ঐতিহ্য ধরে রাখার জন্য হারিকেন এর বিষয়ে ইতিহাসে স্থান দেওয়া উচিত। উপজেলার বিভিন্ন বাজারের একাদিক ব্যবসায়ীরা জানান, আমরা র্দীর্ঘ দিন যাবৎ ব্যবসা করছি সেই ১৯৯০-'৯৫ সালের কথা, দোকানে হারিকেন, কুপি, দোয়াত বাতি বিক্রি করতাম। আজ ৩৫/৪০ বছর পর এসে দেখি হারিকেন, কুপি বেচা কেনা নেই। উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মো. হুমায়ুন কবীর বলেন, হারিকেন এর ঐতিহ্য বাংলার মানুষের অন্তরে মিশে আছে এবং থাকবে। সরকার ঘরে ঘরে বিদুৎ এর ব্যবস্হা করেছে। স্থানীয় প্রশাসনের উদ্যোগে হারিকেন ধরে রাখার কোন ব্যবস্থা নেই, এই হারিকেন এর ঐতিহ্য যুগের পর যুগ ধরে রাখার জন্য জাতীয় যাদুঘরে রাখার ব্যবস্থা করতে পারেন সরকার।

সকল মন্তব্য

মন্তব্য দিতে চান তাহলে Login করুন, সদস্য না হলে Registration করুন।

সকালের আলো

Sokaler Alo

সম্পাদক ও প্রকাশক : এস এম আজাদ হোসেন

নির্বাহী সম্পাদক : সৈয়দা আফসানা আশা

সকালের আলো মিডিয়া ও কমিউনিকেশন্স কর্তৃক

৮/৪-এ, তোপখানা রোড, সেগুনবাগিচা, ঢাকা-১০০০ হতে প্রকাশিত

মোবাইলঃ ০১৫৫২৫৪১২৮৮ । ০১৭১৬৪৯৩০৮৯ ইমেইলঃ newssokaleralo@gmail.com

গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের তথ্য অধিদপ্তরে নিবন্ধনের জন্য আবেদিত

Developed by IT-SokalerAlo     hit counters Flag Counter