শুক্রবার, জুলাই ১৯, ২০২৪

গোলাপগঞ্জে এহিয়া ট্রাস্টের উদ্যোগে বৃত্তি ও শিক্ষক পদক বিতরণ সম্পন্ন

  • গোলাপগঞ্জ প্রতিনিধিঃ
  • ২০২৪-০২-১২ ১৬:৫০:১৮
গোলাপগঞ্জে এহিয়া ট্রাস্টের উদ্যোগে বৃত্তি ও শিক্ষক পদক বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ইংরেজি বিভাগের বিভাগীয় প্রধান প্রফেসর ড. হোসেন আল মামুন বলেছেন,সময়ের প্রয়োজনে শিক্ষার্থীদের ভাবনার পরিবর্তন করতে হবে।প্রয়োজন অনুযায়ী সঠিকভাবে শিখতে হবে। তিনি শিক্ষার্থীসহ সকলকে মোবাইল ফোন ব্যবহারে সতর্কতা অবলম্বনের আহ্বান জানিয়ে বলেন বিশ্বায়নের অজুহাত দিয়ে আমরা এখন অতিরিক্ত মোবাইল ফোন নির্ভর হয়ে পড়েছি, বিশ্বের উন্নত দেশগুলোর মানুষও তাদের প্রয়োজনে মোবাইল ব্যবহার করে কিন্তু এতে কাজে কোন না ব্যাঘাত ঘটে না। আমাদের দেশের চিত্রটা তার বিপরীত। তিনি আরো বলেন বাংলা আমাদের পরিচিতির মাধ্যম,আর ইংরাজি হচ্ছে সময়ের প্রয়োজন। গতকাল রবিবার বেলা ১১ ঘটিকায় গোলাপগঞ্জ জামেয়া ইসলামিয়া উচ্চ বিদ্যালয় মিলনায়তনে এহিয়া ট্রাস্টের প্রতিষ্ঠাতা ও চেয়ারম্যান, যুক্তরাজ্য প্রবাসী শিক্ষাবিদ চৌধুরী বখতিয়ার এহিয়া রেহেলের সভাপতিত্বে ও এহিয়া ট্রাস্টের ট্রাস্টি মাহফুজ আহমদ চৌধুরীর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে সিলেট কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্টার বদরুল ইসলাম শোয়েব বলেছেন,সমাজ পরিবর্তনের শিক্ষার বিকল্প নেই। নৈতিকতা, সততা ও দক্ষতা অর্জনের মাধ্যমে সমাজ পরিবর্তন সম্ভব। শিক্ষার্থীদের সীমিত জ্ঞান নিয়ে সঠিক লক্ষে পৌঁছা সম্ভব নয়, শিক্ষার্থীদের এগিয়ে যাওয়ার জন্য স্বপ্ন দেখতে হবে। জেগে জেগে স্বপ্ন দেখতে হবে। সমৃদ্ধ আত্মনির্ভর জাতি গঠনে যুগপযোগী সমাপোযোগী শিক্ষার বিকল্প নেই। জামেয়ার সপ্তম শ্রেণীর শিক্ষার্থী মোঃ মাজেদুল ইসলামের কোরআন তেলাওয়াতের মাধ্যমে সূচিত অনুষ্ঠানের স্বাগত বক্তব্য রাখেন এহিয়া ট্রাস্টের সেক্রেটারি,আজাদ চৌধুরী একাডেমির ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক শাহেদ আহমদ চৌধুরী। সম্মানিত অতিথির বক্তব্য রাখেন গোলাপগঞ্জ জামেয়া ইসলামিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রিন্সিপাল মোহাম্মদ তাজুল ইসলাম ও এহিয়া আহমদ চৌধুরী স্মৃতি একাদশ শিক্ষক পদক প্রাপ্ত কৃতি শিক্ষক, ভাদেশ্বর নাছির উদ্দিন উচ্চ বিদ্যালয় ও কলেজের সিনিয়র শিক্ষক মোঃ আমিন উদ্দিন। বক্তব্য রাখেন গোলাপগঞ্জ জামেয়া ইসলামিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের ভাইস প্রিন্সিপাল জিন্নুর আহমদ চৌধুরী, ঢাকাদক্ষিণ জামেয়া ইসলামিয়া স্কুল পরিচালনা কমিটির সভাপতি প্রবীণ শিক্ষক রশীদ আহমদ, ঢাকাদক্ষিণ জামেয়া ইসলামিয়া স্কুলের প্রিন্সিপাল মোহাম্মদ জামিল আহমদ, বৃত্তিপ্রাপ্ত শিক্ষার্থীর অভিভাবক আব্দুল মালিক বৃত্তিপ্রাপ্ত শিক্ষার্থী নাজমুস সাকিব ওহী, পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক মোঃ ইখতিয়ার উদ্দিন, ইসলামী সংগীত পরিবেশন করে জামেয়া শিক্ষার্থী আহমদ চৌধুরী।অনুষ্ঠানে শিক্ষক প্রদক প্রাপ্ত কৃতি শিক্ষকের হাতে ক্রেস্ট ও নগদ অর্থ তুলে দেন প্রধান অতিথি।এহিয়া আহমদ চৌধুরী স্মৃতি অষ্টাদশ জুনিয়র বৃত্তিপ্রাপ্ত শিক্ষার্থীদের হাতে বাঁধাই করা সার্টিফিকেট নগদ অর্থ, শহীদ আহমদ চৌধুরী স্মৃতি চতুর্থ প্রাথমিক বৃত্তিপ্রাপ্ত শিক্ষার্থীদের হাতে বাঁধাই করা সার্টিফিকেট নগদ অর্থ, বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের উন্নয়নে দেড় লক্ষ টাকা অনুদান ও শামসুন্নাহার চৌধুরী শিক্ষা বৃত্তিপ্রাপ্ত ১১ জন শিক্ষার্থীকে ৮৫ হাজার টাকা প্রদান করা হয়। আলোচনা সভা শেষে বিশেষ মোনাজাত পরিচালনা করেন ঘোগারকুল ইসলামিয়া মহিলা মাদ্রাসার নায়েবে মুহতাতামিম মাওলানা ফরিদ উদ্দিন।

এ জাতীয় আরো খবর